স্কুল, মাদ্রাসা সহ সমস্ত বোর্ডের পরীক্ষার সময়সূচি পরিবর্তন

স্কুল, মাদ্রাসা সহ সমস্ত বোর্ডের পরীক্ষার সময়সূচি পরিবর্তন হলো। তার মানে? এ বছর যারা স্কুল থেকে মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে চলেছে, অর্থাৎ, এবছর মাদ্রাসা বোর্ড থেকে হাই মাদ্রাসা আলিম ফাজিল পরীক্ষার্থী এবং বোর্ডের মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী, তাদের প্রত্যেকের কিন্তু পরীক্ষার সময় অর্থাৎ মূল পরীক্ষার শুরুর যে টাইম (নির্ঘণ্ট), তার পরিবর্তন ঘটানো হয়েছে। এ বিষয় নিয়ে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ, পশ্চিমবঙ্গ মাদ্রাসা শিক্ষা পর্ষদ এবং পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদ আলাদা আলাদা বিজ্ঞপ্তিও জারি করে দিয়েছে। এ বিষয় নিয়ে আজকের এই আপডেট। কাজেই সম্পুর্ণ আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ো এবং বন্ধুদের মধ্যে শেয়ার করে, তথ্যটা জানতে সাহায্য করো।

বোর্ডের সময় পরিবর্তনের অফিসিয়াল বিজ্ঞপ্তি পেতে আমাদের Nana Ronger itihas -এর টেলিগ্রাম চ্যানেল এবং হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলে কে সাবস্ক্রাইব করে পাশে থাকুন এবং বিজ্ঞপ্তি ডাউনলোড করুন।

প্রথমে একটা বিষয় ক্লিয়ার করে বলি, পরীক্ষার রুটিন এর পরিবর্তন ঘটে নি। যেদিন যে সাবজেক্ট এর পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল, সেটা সেই দিনই হবে। তবে, যে সময়ে হবার কথা ছিল, তার পরিবর্তন ঘটছে। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক প্রত্যেকটা পরীক্ষা, মাদ্রাসা বোর্ডের আলিম ফাজিল হাই মাদ্রাসা হোক বা স্কুল বোর্ডের মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক 2024 এর ফাইনাল পরীক্ষা । পরীক্ষা শুরু হবে সকাল 9.45 থেকে। অর্থাৎ ছাত্র-ছাত্রীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে 9AM এর মধ্যেই পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছে যাওয়াটা প্রয়োজন।

বোর্ডের পরীক্ষার সময় পরিবর্তন, এটা নিয়ে কিন্তু সমস্ত বোর্ডের তরফ থেকে আলাদা আলাদা নোটিফিকেশন জারি করে ছাত্রছাত্রীদের রিভাইজড রুটিন বা পরীক্ষার নয়া নির্ঘণ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

পরীক্ষার সময়সূচি পরিবর্তন নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাওয়া যাচ্ছে। একদল ছাত্র-ছাত্রী বলছে, – হ্যাঁ, ঠিকই আছে। সকাল সকাল পরীক্ষা হয়ে গেলে, বিকেলে বাড়ি ফিরে পড়া যাবে। আবার অনেকে বলছেন, -সকাল 9AM এর মধ্যে পরীক্ষা কেন্দ্রে যাওয়াটা, যথেষ্ট চাপের। একদম ভোরবেলা উঠেই, দুটো খেয়ে দেয়েই আমাদের পরীক্ষা দিতে হবে। পরীক্ষা হলে পৌঁছানোর আগে একটু বই দেখে নেওয়ার ব্যাপার থাকে! কিন্তু পর্ষদের এই তুঘলকি সিদ্ধান্তে বই পড়ার সুযোগ থাকছে না।

আমরা জানি, শহরের কিছু স্কুল বাদেও গ্রামগঞ্জের অনেক ছাত্র-ছাত্রী মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক সহ বোর্ডের পরীক্ষা দিতে শহরের স্কুলে আসেন, যেখানে যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত নয়! সেই সমস্ত জায়গার ছাত্রছাত্রীরা কিভাবে পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছাবে?

এই যে পরীক্ষাটা এগিয়ে দেওয়া হল, সকাল 9.45AM থেকে শুরু হবে। এ বিষয়ে আপনার মতামত কি অবশ্যই কমেন্ট লিখে জানাবেন।

একাদশ শ্রেণির পরীক্ষার্থীরা বলতে পারো, আমাদের কি হবে? এবার ইলেভেনের পরীক্ষা বোর্ডে নেবে না এবং বোর্ড এ বিষয় নিয়ে কোন নির্দেশও দেয় নি। এখনো পর্যন্ত যা খবর, কোন ডেটে, কোন পরীক্ষা নেওয়া হবে তা সম্পূর্ণ ঠিক করবে স্কুল কর্তৃপক্ষ। অর্থাৎ, ক্লাস ইলেভেনের ফাইনাল পরীক্ষার সময়সূচী বা নির্ঘণ্ট প্রকাশ করবে স্কুল, সেই ডেটেই একাদশ শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা হবে।

Leave a Comment